কলকাতার নতুন চার ছবিতে শাকিব

নিজেস্ব প্রতিবেদক।।
বাংলাদেশ ও কলকাতায় শাকিব অভিনীত মুক্তিপ্রাপ্ত সর্বশেষ ছবি ‘নাকাব’। এরপর কলকাতার আর কোনো ছবিতে অভিনয় করতে শোনা যায়নি। তখন শোনা গিয়েছিল, কলকাতায় শাকিবের আর কাজ করা হচ্ছে না। অক্টোবরের শুরুতে শাকিব খানকে নিয়ে ভারতীয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এস কে মুভিজের কর্ণধার অশোক ধানুকার তির্যক মন্তব্যে বিষয়টি আরও পরিষ্কার হয়। তবে সব গুঞ্জনকে উড়িয়ে দিয়ে শাকিব খান আবারও কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন কলকাতায়। এবার একসঙ্গে চারটি নতুন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হচ্ছেন তিনি। যদিও শাকিব খান এবিষয়ে এখনই কিছু জানাতে রাজি হননি। শাকিব যে চারটি ছবিতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন, কোন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের, তা নিয়েও কিছু বলেননি এই নায়ক।

শাকিব খান এখন ‘শাহেনশাহ’ ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত। এই ছবিতে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করছেন নুসরাত ফারিয়া ও নবাগত রোদেলা জান্নাত। ‘শাহেনশাহ’ ছবির কাজের ফাঁকে সপ্তাহখানেক পর কলকাতায় যাওয়ার কথা রয়েছে তাঁর। তখনই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ছবিগুলো নিয়ে চুক্তি সই করবেন। গতকাল শুক্রবার রাতে শাকিব খান কলকাতার নতুন চারটি ছবির ব্যাপারে বললেন, ‘আমার মুখে কুলুপ এঁটে রাখতে হচ্ছে। এখনই কিছু বলা যাবে না। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে এখনই কিছু না বলার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। তবে এটুক বলব, আবারও চমক অপেক্ষা করছে।’

বছর দুয়েক আগে জাজ মাল্টিমিডিয়া ও এসকে মুভিজের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘শিকারি’ ছবি দিয়ে বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতের বাজারে পা রাখেন শাকিব খান। প্রথম ছবি দিয়ে দুই বাংলায় সাড়া ফেলতে সক্ষম হন। কলকাতার প্রযোজক, পরিচালক ও অভিনয়শিল্পীদের মুখে ‘শাকিব-বন্দনা’ শুরু হয়। সেখানকার প্রযোজক-পরিচালকেরা শাকিবকে নিয়ে নতুন গল্পের সিনেমা নির্মাণের পরিকল্পনা করেন। এদিকে দেশের প্রযোজক ও পরিচালকদের সঙ্গে সমন্বয় করে শাকিবও বাইরের দেশে কাজ করে চললেন। এতে করে কলকাতায়ও শাকিবের ভক্ত গ্রুপ তৈরি হয়।

শাকিব বলেন, ‘বাংলাদেশের শিল্পীদের কলকাতায় কদর বেড়েছে, সেখানে গেলেই এখন তা টের পাই। আমার যে কয়টা ছবি ভারতে মুক্তি পেয়েছে, সব কটি ব্যবসায়িকভাবে সাফল্য পেয়েছে। এ কারণে সেখানকার প্রযোজক-পরিচালকেরাও চান আবার ছবির কাজ করাতে। আমিও ভাবলাম, অভিনয়শিল্পী কোনো নির্দিষ্ট দেশের না। ভালো কাজের প্রস্তাব পেলে বা সুযোগ এলে যেকোনো দেশেই তাঁর কাজ করা উচিত।’

আগের সংবাদ
পরের সংবাদ