জ্যাম কিংবা বৃষ্টি শাকিব ভক্তদের আটকাতে পারে না

বিনোদন.কম।।
শুক্রবার সারাদেশের শাতাধিক সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে শাকিব খান অভিনীত ছবি ভাইজান এলো রে। আর ছবিটি দেখতে যথারীতি হল গুলোতে হুমড়ি খেয়ে পরেছেন সাধারন দর্শক, শাকিব ভক্তরা। দ্বিগুণ বা তিনগুনে বেশি দামে টিকিট ক্রয় করে ছবিটি দেখছেন অনেকে। অথচ এখন চলছে বর্ষাকাল। আর বার্ষকালে খুব প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হতে চায় না। তারমধ্যে আছে জ্যাম। এতসব উপক্ষে করে মানুষ হলে আসবেন ছবি দেখতে এটা পরিচালক, প্রযোজক এবং হল মালিক পক্ষের কাছে অবিশ্বাস্য।

কিন্তু ছবিটি যখন শাকিব খানের তখন এমন অনেক কিছুই হবে যা আগে কেউ ভাবেনি। হচ্ছেও তাই। বৃষ্টি কিংবা জ্যাম ঘরে বন্দি করে রাখতে পারেনি শাকিব ভক্তদের। তারা সিনেমা হলে এসেছেন, ভাইজানের ছবি দেখেছেন। দেশের কয়েকটি সিনেমা হল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে এমনটাই জানা গেছে। রাজধানীসহ দেশের যেসব সিনেমা হলে ভাইজান এলো রে মুক্তি পেয়েছে সব জায়গার চিত্রটা একই।প্রায় সব হল কতৃপক্ষই বলেছেন, সাধারণত বৃষ্টিতে ছবি দেখতে দর্শক কম আসে। কিন্তু সে নিয়ম পাল্টে ফেলেছেন শাকিব খানের ভক্তরা। অনেকে শোয়ের আগাম টিকিট বিক্রি হচ্ছে। ভালো ছবি দেখতে দর্শক সিনেমা হলে আসেন তার প্রমাণ ‘ভাইজান এলো রে’। বৃষ্টি জ্যাম উপেক্ষা করে হলে এসেছেন দর্শকরা।

আর কষ্ট করে ছবি দেখতে আসা এসব দর্শদের নিরাশ করেননি ভাইজান শাকিব। ছবিতে অ্যাকশন, কমেডি, রোমান্স সবই রেখেছেন তিনি। অনেকে এটাকে শাকিব অভিনীত সেরা ছবির তালিকায় প্রথম দিকে রেখেছেন।

সাফটা চুক্তির মাধ্যমে কলকাতার পর ‘ভাইজান এলো রে’ ছবিটি বাংলাদেশে শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের ১০৯টি সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে এটি। এদেশে ছবিটি মুক্তি দিয়েছে এন ইউ আহমেদ ট্রেডার্স। শাকিব খান ছাড়াও বাংলাদেশের দীপা খন্দকার, মনিরা মিঠু, শাহেদ আলী ছবিতে অভিনয় করেছেন। আর কলকাতার অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে রয়েছেন শ্রাবন্তী, পায়েল সরকার, শান্তিলাল, রজতাভ দত্ত প্রমুখ। ছবিটি পরিচালনা করেছেন জয়দীপ মুখার্জি।

আগের সংবাদ
পরের সংবাদ