ব্রাজিল বনাম কোস্টারিকার মহারন দেখুন সরাসরি….

খেলাটি দেখতে সমস্যা হলে নিচে দেখুন….

স্পোর্টস ডেস্ক।। কোস্টারিকার বিপক্ষে আজ গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে ব্রাজিল। কেমন হতে যাচ্ছে তিতের একাদশ?

রাশিয়া বিশ্বকাপ যেন শুরু থেকেই রোমাঞ্চের ডালি সাজিয়ে বসেছে। রোমাঞ্চ না বলে টালমাটাল বলাই উত্তম। মেক্সিকোর কাছে জার্মানির হারের পর গতকাল হেরে গেছে আর্জেন্টিনা। এ হারে বিশ্বকাপ থেকে বিদায়ের শঙ্কাই বেজে গেছে মেসির। তাই শিরোপাপ্রত্যাশী প্রতিটি দল মাঠে নামছে একটা শঙ্কা নিয়ে, ‘কী হয় কী হয়!’ এমন শঙ্কার মাঝে আজ কোস্টারিকার বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামতে যাচ্ছে ব্রাজিল।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রত্যাশিত জয় পায়নি ব্রাজিল। ১-১ গোলে ড্র করে মাঠ ছাড়ায় বিশ্বকাপকেই শঙ্কায় ফেলে দিয়েছে নেইমারের দল। আজ কোস্টারিকার বিপক্ষে জয় ছাড়া অন্য কিছু হলে দ্বিতীয় রাউন্ডে পা রাখাটা কঠিনই হয়ে যেতে পারে তাদের। তাই সেন্ট পিটার্সবার্গে ব্রাজিল দল মাঠে নামার আগে সেলেসাও–সমর্থকদের মনে বেশ কয়েকটি প্রশ্ন, নেইমার খেলতে পারবেন তো? তিতের একাদশ ও ফরমেশন আগেরটাই থাকছে কি না?

ব্রাজিল–ভক্তদের জন্য আপাতত খুশির খবর, নেইমারকে শুরু থেকেই মাঠে দেখা যাবে। শুধু তা–ই নয়, নুডলস চুলের ছাঁট বদলে আগের মতোই ইটচাপা ধূসর রঙের মতো চুল নিয়ে হাজির হবেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবলের বর্তমান পোস্টার বয়। এখন পায়ের জাদুটা ফিরলেই হয়!

সুইসদের বিপক্ষে আগের ম্যাচে ৪-৩-৩ ফরমেশনে খেলিয়েছিলেন তিতে। কোস্টারিকার বিপক্ষে রণকৌশলটা থাকছে এটাই। তবে একাদশে একটি পরিবর্তন থাকছে নিশ্চিত। ইনজুরিতে রাইটব্যাক দানিলো ছিটকে পড়ায় করিন্থিয়ানসের ডিফেন্ডার ফাগনার।

কয়েক বছর ধরেই ব্রাজিল গোলপোস্টের নিচে আস্থার এক নাম এলিসন। সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে চার ডিফেন্ডার নিয়ে দল সাজিয়েছিলেন তিতে। আজও তা–ই। একাদশে পরিবর্তন বলতে রাইট ব্যাক দানিলোর স্থলে ফাগনার। চার ডিফেন্ডারের সামনে হোল্ডিং মিডফিল্ডার কাসেমিরো। তাঁর ডান পাশে বার্সেলোনা তারকা পাওলিনহো ও বাঁ পাশে আগের ম্যাচের একমাত্র গোলদাতা কুতিনহো। আর ফরোয়ার্ড লাইনের বাঁ প্রান্তে নেইমার ও ডান প্রান্তে চেলসির উইলিয়ান। ‘নাম্বার নাইন’ হিসেবে অনেকে লিভারপুলের ফিরমিনোকে আশা করলেও তিতের আস্থা জেসুসের ওপরেই।

সম্ভাব্য একাদশ
গোলরক্ষক: আলিসন
রক্ষণভাগ: থিয়াগো সিলভা, জোয়াও মিরান্দা, মার্সেলো ও ফাগনার
মাঝমাঠ: কাসেমিরো, কুতিনহো ও পাওলিনহো
আক্রমণভাগ: নেইমার, জেসুস ও উইলিয়ান

আগের সংবাদ
পরের সংবাদ