কানায় কানায় যৌনতায় ভরা পাঁচটি ভারতীয় বাংলা সিনেমা [ভিডিও]

বিনোদন.কম।।
পর্দায় নায়ক-নায়িকা কাছাকাছি এলে এখন দুটি গাঁদা কিংবা চন্দ্রমল্লিকা ফুল পাশাপাশি আসে না। এখন এই ইন্ডাস্ট্রি সাবালক হয়েছে। ‘ঢাক ঢাক’ ভাবটাও গিয়েছে। ‘যৌনতা’ শব্দটা যে অতি গোপনীয় এই ধারনাটা বিদায় নিয়েছে টলি-ইন্ডাস্ট্রি থেকে। এখন এই ইন্ডাস্ট্রির ধারক ও বাহকরা অনেক বেশি খোলামেলা। একের পর এক সাহসী দৃশ্য ফুটে উঠছে সিনেপর্দায়। চোখ রাখব এমনই কয়েকটি ছবির দিকে। যৌনতা যেখানে হাতছানি দিয়ে যায়:

আরও পড়ুন
পর্ণ দেখেন, তাহলে প্রতিবেদনটি এড়িয়ে যাবেন না

ছত্রাক
২০১১ সালের কান চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হয় ভারতীয় বাংলা ছবি ‘ছত্রাক’। এই ছবিটি বাংলার পাশাপাশি ইংরাজিতেও ডাবিং হয়। শ্রীলঙ্কান পরিচালক ভিমুক্তি জয়াসুন্দরা ছবিটি তৈরি করেন। এই ছবিতে পাওলি দামের একটি ওরাল সেক্স দৃশ্য এমএমএস আকারে ফাঁস হওয়ায় বিতর্কের সৃষ্টি হয়। এই বাংলা বন্ধ হয়ে যায় এই ছবির মুক্তি।

বেডরুম
‘বেডরুম’-এর পরিচালক মৈনাক ভৌমিক। ছবিতে রয়েছে আবির চট্টোপাধ্যায়, রুদ্রনীল ঘোষ, উষসী, পার্নো মিত্র, পাওলি দাম, রাহুল, তনুশ্রী, অনুব্রত। এই সিনেমাটি বেশ কয়েকটি দৃশ্য রয়েছে উষ্ণ আবেদনের ছোঁয়া। ২০১২-তে মুক্তি পায় ছবিটি।

নাগরদোলা
২০০৫ সালে এই ছবিটি তৈরি হয়। এই ছবিতে অভিনয় করেছেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। যৌনতার মোড়কে ভরপুর এই ছবিটির পরিচালক রাজ মুখোপাধ্যায়।

কসমিক সেক্স
২০১৪ সালে অনলাইনে বিশ্বের দরবারে হাজির হয় ‘কসমিক সেক্স’। এই ছবিতে অভিনয় করেছেন রি। বাউলতত্ত্ব নিয়ে তৈরি ছবিতে সাহসী রি এককথায় প্রশংসার দাবিদার। ছবিটি পরিচালনা করেছে অমিতাভ চক্রবর্তী।

অন্তরমহল
অন্তরমহল ২০০৫ সালে মুক্তি পায় ঋতুপর্ণ ঘোষের এই ছবিটি। এই ছবিতে অভিনয় করেন সোহা আলি খান, জ্যাকি শ্রফ, অভিষেক বচ্চন, রূপা গঙ্গোপাধ্যায় প্রমুখ।

আগের সংবাদ
পরের সংবাদ