রণবীরের গাড়ির দাম মাত্র সাড়ে তিন কোটি! তবে শাহরুখের গাড়ির দাম কত?

২৪বিবিডি.কম।।
বলিউড মানেই স্বপ্নের জগত। এখানকার বাসিন্দরা তাই সাধারণ মানুষের স্বপ্নেই ধরা দেয়। বিশ্ব চলচ্চিত্রের দ্বিতীয় দামী ইন্ডাষ্ট্রি এই বলিউড। স্বাভাবিক কারণে সেখানকার অভিনেতায় শিল্পীরা সব বিলাসবহুল জীবন যাপন করেন। এরমধ্যে অভিনেতারা তাদের শখ পূরণ করেন গাড়ি কিনে। একেক জন গাড়ি রাখার জন্যই ব্যবহার করেন বিশাল গ্যারেজ। দেখেদিন বলিউড নায়কদের কতগুলো গাড়ি আছে, তারমধ্যে সবচেয়ে বেশিদামী গাড়ি কোনটি। কম দাম দিয়েই শুরু করা যাক।

 

রণবীর কাপুরের
বলিউডের হালের ক্রেজ রণবীর কাপুরের গাড়ির নেশা প্রবল। বেশিরভাগ সময় রণবীরকে লাল রঙের অডি আর৮ মডেলের গাড়িতে চড়তে দেখা যায়। যার দাম সাড়ে তিন কোটি টাকার একটু বেশি! এছাড়াও তার একটি সাদা রেঞ্জ রোভার, অডি এ৮ এবং একটি মার্সিডিজ বেঞ্জ রয়েছে।

অমিতাভ বচ্চন
অমিতাভ বচ্চনের গ্যারেজে রয়েছে ২০টির বেশি গাড়ি। তার মধ্যে ১২টির বেশি আবার সুপারকার। বিগ বি-র গাড়ির তালিকায় রয়েছে বেন্টলি কন্টিনেন্টাল জিটি, রেঞ্জ রোভার, মার্সিডিজ বেঞ্জ, লেক্সাস এসএক্স৪৭০, মার্সিডিজ এসএল৫০০, পোরশে কেম্যান এস, মার্সিডিজ ই ২৪০, বিএমডব্লু এক্স ৫, বিএমডব্লু ৭ সিরিজ, মার্সিডিজ এস ৩২০, বিএমডব্লিউ, টয়োটা ল্যান্ড ক্রুজার এবং রোলস রয়েস ফ্যান্টম। বলিউড পরিচালক এবং অমিতাভের ঘনিষ্ঠ বন্ধু বিধু বিনোদ চোপড়া তাকে ৩ কোটি ৮০ লক্ষ টাকার রোলস রয়েস ফ্যান্টম গাড়িটি উপহার দিয়েছেন বলে জানা যায়।

সঞ্জয় দত্ত
বলিউড তারকা সঞ্জয় দত্ত তার স্ত্রী মান্যতা যমজ সন্তান জন্ম দেওয়ার পরই তাকে রোলস রয়েস ঘোস্ট গিফট করেন। অন্যদিকে, বেআইনি অস্ত্র রাখার অভিযোগে দীর্ঘদিন কারাগারে বন্দি ছিলেন মুন্নাভাই। সম্প্রতি সংশোধনাগার থেকে তার মুক্তির পরই সঞ্জুবাবার ৫৭তম জন্মদিনে তাঁকে অডি কিউ৭ গিফট করেন স্ত্রী মান্যতা। এই গাড়িটির নম্বর আবার ৪৫৪৫। তবে সঞ্জয়ের গ্যারেজে সবচেয়ে দামী ফেরারি-৫৯৯। যা তিনি চার কোটি টাকা দিয়ে কিনেছেন। এছাড়া সঞ্জয়ের গ্যারাজে রয়েছে দুই সিটের অডি আর৮, অডি এ৮, লেক্সাস এসইউভি, মার্সিডিজ বেঞ্জ ক্লাস, পোরশে এসইউভি, টয়োটা ল্যান্ড ক্রুজার, বিএমডাব্লিউ৭ সিরিজ।

সালমান খান
অন্যদিকে, সলমন খানের সংগ্রহে রয়েছে বিএমডব্লু এক্স ৬, অডি কিউ ৭, অডি এ৮, ল্যান্ড রোভার, রেঞ্জ রোভার ভোগ এবং অডি আর ৮-এর মতো গাড়ি। বডিগার্ড সিনেমার ব্যাপক সাফল্যের পর একটি অডি আরএস ৭ উপহার পান সলমন। জানা যায়, সিনেমাটিতে ওই গাড়ির ব্যবহারের পরই নাকি গাড়ির বিক্রি কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছিল। এরপরই কোম্পানির পক্ষ থেকে গাড়িটি উপহারস্বরূপ সালমানকে দেওয়া হয়। গাড়ির বিক্রয় মূল্য ধার্য করা হয়েছিল ৫ কোটি।

হৃতিক রোশন
গাড়ি কেনার ব্যাপারে কোনও অংশেই পিছিয়ে নেই বলিউডে আরেক অভিনেতা হৃতিক রোশন। নিজের ৪২তম জন্মদিনে নিজেকেই নিজে একটি রোলস রয়েস গাড়ি উপহার দেন তিনি। গাড়িটির দাম প্রায় ৭ কোটি টাকা। নতুন গাড়িতে দুই ছেলে রিহান এবং রিধানকে চড়িয়ে ঘুরতে যান হৃতিক। এছাড়া হৃতিকের কাছে রয়েছে মার্সিডিজ এস ক্লাস, ফেরারি মডিনা, মাসেরাতি স্পাইডার, পোরশে টারবো, রেঞ্জ রোভার, জাগুয়ার এক্স জে।

আমির খান
ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এবং শিল্পপতি মুকেশ আম্বানির পর ভারতের তৃতীয় ব্যক্তি হিসাবে মার্সিডিজ বেঞ্জ এস ৬০০ মডেলের গাড়ি কিনেছিলেন আমির খান। ‘সত্যমেভ জয়তে’ শো-হোস্ট করার সময় প্রাণনাশের হুমকি পেয়েছিলেন আমির খান। এর পরেই ১০ কোটি টাকা খরচ করে গা়ড়িটি কিনে ফেলেন মিস্টার পারফেকশনিস্ট। নিরাপত্তাজনিত কারণে আমির তার গাড়িটি এমনভাবে তৈরি করান যে তাতে বোমার আক্রমণ করা হলেও ভেতরে সুরক্ষিত থাকতে পারবেন তিনি। আমিরের সংগ্রহে রয়েছে রোলস রয়েস ঘোস্টও।

শাহরুখ খান
বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের গ্যারেজে রয়েছে চোখ ধাঁধানো একের পর এক গাড়ি। তার সংগ্রহে রয়েছে মার্সিডিজ, অডি এ৬, অডি কিউ ৬, বিএমডব্লু ৭ সিরিজ, বিএমডব্লু ৬ সিরিজ, বিএমডব্লু কনভার্টিবল, বেন্টলি কন্টিনেন্টাল জিটি, রোলস রয়েস ফ্যান্টম, মিতসুবিশি পাজেরো, ল্যান্ড ক্রুজার এবং ২.২৯ কোটি টাকার বিএমডব্লিউ আই ৮-র মতো লাক্সারি গাড়ি। এছাড়াও তার গ্যারেজে রয়েছে বিশ্বের দ্রুততম গাড়ি ‘বুগাত্তি ভেরন’। গাড়িটির দাম ১২ কোটি টাকা। সম্প্রতি নিরাপত্তার কথা ভেবে বোমা প্রতিরোধক গাড়িটি কিনেছেন কিং খান। হ্যাপি নিউ ইয়ার সিনেমার শ্যুটিং চলাকালীন ফোনে হুমকির পরই নিরাপত্তার কারণে মার্সিডিজের এই গাড়িটি কেনেন শাহরুখ। মার্সিডিজ মডেলের এই বিশেষ গাড়িটি ক্রেতার চাহিদা অনুযায়ী বানানো হয়। সাধারণত ভিআইপি এবং ভিভিআইপিরাই এ ধরনের গাড়ি ব্যবহার করেন।

আগের সংবাদ
পরের সংবাদ